‘উড়তা পাঞ্জাব’ নিয়ে সেন্সরবোর্ডের সিদ্ধান্তে সরব বলিউড

the-udta-punjab-posters-696x325

‘উড়তা পাঞ্জাব’-এর মুক্তি নিয়ে সেন্সরবোর্ডের ‘বাড়াবাড়ি’র বিরুদ্ধে এবার একজোট গোটা বলিউড। এই ছবির পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপের পাশে দাঁড়িয়ে সেন্সরবোর্ডের বিরুদ্ধে রীতিমতো বিদ্রোহ ঘোষণা করেছেন জয়া আখতার, মহেশ ভাট, সুধীর মিশ্রের মতো প্রখ্যাত চিত্র পরিচালকরা। ‘উড়তা পাঞ্জাব’ ছবির মুক্তির জন্য ছবির ৮৯টি দৃশ্যে কাঁচি চালানোর যে শর্ত দেওয়া হয়েছে, তাকে বোর্ডের অরাজকতা হিসেবে তোপ দেগেছে ফিল্ম ফ্রেটার্নিটির মানুষরা।

এদিকে, সেন্সরবোর্ডের প্রধান পহেলরাজ নিহালনি আবার অনুরাগ কাশ্যপের বিরুদ্ধে এক অভিযোগ এনে বিতর্ক আরও উসকে দিয়েছেন।

পাঞ্জাবের মাদকাসক্তির সমস্যা তুলে ধরা ‘উড়তা পাঞ্জাব’ ছবিতে বিস্তর কাঁচি চালানোর সিদ্ধান্ত কী রাজনীতির চাপে পড়ে নিতে হয়েছে সেন্সরবোর্ডকে? এই প্রশ্নের উত্তরে নিহালনির দাবি, ‘অবশ্যই না…আমি মোটেই তা করিনি…কে কোনটা দেখাশোনা করে, সে বিষয়েও আমি অবগত নই।’ তাহলে কেন কাশ্যপ তাঁকেই টার্গেট করছেন? এই প্রশ্নের জবাবে সেন্সরবোর্ডের প্রধান বলেছেন, ‘এটা তার ব্যাপার…আমি শুনেছি, সে আপ-এর কাছ থেকে টাকা নিয়েছেন। তাহলে তো আর প্রশ্নের অবকাশ থাকে না। তিনি হলেন আপ-এর স্পন্সর।’

নিহালনির এই অভিযোগের উত্তরে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল টুইটে দাবি করেছেন, ‘নিহালনির বক্তব্যেই এটা পরিষ্কার হয়ে গেল যে, তিনি বিজেপি-র নির্দেশেই এই ফিল্মের মুক্তি আটকে দিয়েছেন।’

এদিকে, মুক্তির দিনকয়েক আগে ‘উড়তা পাঞ্জাব’ থেকে পাঞ্জাব ও রাজনীতি সম্পর্কীয় যাবতীয় দৃশ্য কেটে বাদ দিতে বলায় সেন্সবোর্ডের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করেছে গোটা বলিউড। বুধবার অনুরাগ কাশ্যপ, শহীদ খানকে পাশে রেখে যৌথ সাংবাদিক বৈঠক করেন জয়া আখতার, মহেশ ভাট, সুধীর মিশ্রের মতো পরিচালকরা।

এদিন অনুরাগ কাশ্যপ বলেন, ‘আমি রাজনীতি করি না। সিনেমা করি। কখনও এভাবে সাংবাদিক বৈঠকে বসতে হবে ভাবিনি।’ উড়তা পাঞ্জাবের নায়ক শহীদ কাপুরের বক্তব্য, ‘এই সিনেমা তরুণ প্রজন্মের জন্য তৈরি। এত কাটছাঁট করলে সিনেমা তৈরির মূল উদ্দেশ্য সফল হবে না।’

কাশ্যপের পাশে দাঁড়িয়ে পরিচালক মহেশ ভাট বলেছেন, ‘সেন্সরবোর্ডের অরাজকতা চলতে পারে না। এটা শিল্পীর স্বাধীনতার উপর হস্তক্ষেপ।’ পরিচালক জয়া আখতারের মত, ‘এই অরাজকতার প্রতিবাদে গোটা বলিউডের একযোগে প্রতিবাদ করা উচিত।’

পরিচালক সুধীর মিশ্রের মতে, ‘স্কুলের প্রিন্সিপ্যালের মতো আচরণ করছেন সেন্সরবোর্ডের প্রধান। যতই বাধা আসুক, সিনেমা মুক্তি পাবেই। ইন্টারনেটে দর্শকরা সিনেমা দেখতে পারবেন। সেন্সরবোর্ড কিছু করতে পারবে না।’

সেন্সরবোর্ডের নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে বোম্বে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন ‘উড়তা পাঞ্জাব’-এর প্রযোজকরা। অনুরাগ কাশ্যপের প্রডাকশন হাউস ফ্যান্টম ফিল্মস ও একতা কাপুরের বালাজি মোশন পিকচার্সের আবেদনের শুনানি হবে যেকোনও মুহূর্তে।

Comments

comments

Leave a Reply

Scroll To Top