ঘুষি মেরে সোনুকে রক্তাক্ত করেছিলেন সালমান খান!

বলিউড অভিনেতা সালমান খানকে সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কিছু সিনেমায় ‘অ্যাকশন হিরো’র ভূমিকায় দেখা গেছে। অন্যদিকে অভিনেতা সোনু সুদেরও বলিউডে বিচরণ অনেক দিন থেকে। ২০১০ সালে ব্লকবাস্টার সিনেমা ‘দাবাং’ এর একসাথে দেখা গিয়েছিলো এই দুই অভিনেতাকে। মারামারির দৃশ্যে রক্তাক্ত হতেও দেখা গেছে সালমান-সোনুকে।

তবে সেসব রক্ত ঝড়ানো দৃশ্য ছিলো সিনেমার গল্পে, চিত্রনাট্যের প্রয়োজনে। কিন্তু জানা গেছে, কোন সিনেমায় নয় বাস্তব জীবনে ঘুষি মেরে সোনুর নাক ফাটিয়ে দিয়েছিলেন সালমান খান। সম্প্রতি ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে এ তথ্য জানিয়েছেন সোনু নিজেই।

বলিউডের দর্শকপ্রিয় সিনেমা ‘দাবাং’। এ সিনেমার খল চরিত্র ছেদি সিং। এই চরিত্রটি রূপায়ন করেছেন সোনু। এ সিনেমার শুটিংয়ের সময় এই দুর্ঘটনা ঘটেছিল।

এ প্রসঙ্গে সোনু সুদ বলেন, “সালমান বুঝতে না পেরে বেশি জোরে আমার নাকে ঘুষি মেরে দেয়। এতে আমার নাক ফেটে রক্ত ঝরতে শুরু করে। ভালোরকম চোট লেগেছিল। পরে আমাকে হাসপাতাল নিয়ে যাওয়া হয়। ওই অবস্থাতেই আরো ৫-৬ দিন শুটিং করেছিলাম।”

‘দাবাং’ সিনেমা মুক্তির পর দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছিলেন ভিলেন ছেদি সিং। অথচ এই চরিত্রে প্রথমে অভিনয় করতে চাননি সোনু। চিত্রনাট্যের বেশ কয়েকটি জায়গায় পরিবর্তনের শর্ত দিয়েছিলেন তিনি। চেয়েছিলেন কমেডি ভিলেনের চরিত্র। পরে শর্ত মেনে চিত্রনাট্যে পরিবর্তন করা হয়। যুক্ত করা হয় ফটোগ্রাফারের চরিত্রটি। তারপর ছেদি সিংয়ের চরিত্রে অভিনয় করতে রাজি হন বলেও জানান সোনু।

Comments

comments

Scroll To Top
0