পদত্যাগ এবং আন্দোলন প্রসঙ্গে যা বললেন মৌসুমি

গত ৫ মে অনুষ্ঠিত ২০১৭-১৯ মেয়াদের নির্বাচনে কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্য পদে জয়ী হয়েছিলেন ঢাকাই সিনেমার প্রিয়দর্শিনী মৌসুমি। কিন্তু নির্বাচনের পর আনুষ্ঠানিকভাবে শপথ নেননি তিনি। তখন থেকেই গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল যে হয়ত নতুন কমিটিতে থাকছেন না মৌসুমী। অবশেষে সেই ধারণাই সত্যি করে গত সোমবার বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি থেকে পদত্যাগ করেছেন মৌসুমী।

সম্প্রতি শিল্পী সমিতি থেকে পদত্যাগ এবং এফডিসির বিভিন্ন সংগঠনের আন্দোলন প্রসঙ্গে একটি জাতীয় দৈনিকের সাথে কথা বলেন এই নায়িকা। শিল্পী সমিতি থেকে পদত্যাগের কারন জানতে চাইলে তিনি বলেন, “আমি ২০১৭-১৯ মেয়াদে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে কার্যনির্বাহী সদস্যপদে নির্বাচিত হয়েছি। বিজয়ী হওয়ার পর কিছু কাজেরও দায়িত্ব কাঁধে পড়ে। কিন্তু ব্যক্তিগত নানা সমস্যার কারণে আমার ওপর শিল্পী সমিতির অর্পিত দায়িত্ব পালন করা সম্ভব নয়। এ কারণে পদত্যাগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।”

শুধু তাই নয়, ভবিষ্যতে আর নির্বাচনে দাড়াতে চাননা বলেও জানিয়েছেন এই নায়িকা। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “নির্বাচনে দাঁড়ানোর ইচ্ছা আপাতত নেই। আগেও ইচ্ছা ছিল না। কিন্তু অনেক সময় হয় কী, নিজেদের মানুষ যখন এ ধরনের নির্বাচনে অংশ নেন, তখন আমারও নির্বাচনে অংশ নেওয়ার জন্য অনুরোধ আসে। ইচ্ছা না থাকলেও নির্বাচন করেছি এবং সবার ভালোবাসায় ভোট পেয়ে নির্বাচিতও হয়েছি।”

এছাড়া চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট ১৬টি সংগঠন নিয়ে গঠিত চলচ্চিত্র ঐক্যজোটের সাম্প্রতিক আন্দোলন নিয়েও কথা বলেন তিনি। এ প্রসঙ্গে মৌসুমী বলেন, ‘এই আন্দোলনে আমি বিশ্বাসী নই। আমরা একই পরিবারের। নিজেরা নিজেদের বিরুদ্ধে কেন আন্দোলন করব? এতে বাইরের মানুষ হাসবে।’

বর্তমানে মৌসুমি এ কে সোহেলের ‘পবিত্র ভালোবাসা’ ছবির শুটিং নিয়ে কক্সবাজারে ব্যাস্থ সময় পার করছেন। আগামী ৭ জুলাই পর্যন্ত শুটিং করার কথা জানিয়েছেন তিনি। এরপর তিনি বাস্থ থাকবে মনতাজুর রহমান আকবরের ‘দুলাভাই জিন্দাবাদ’ ছবির কাজে। খুব শীঘ্রই এই ছবির শুটিং শুরু হবে জানিয়েছেন তিনি।

Comments

comments

Scroll To Top