প্রতিরক্ষামন্ত্রীর সমালোচনার মুখে আমির খান!

2016_08_01_10_36_15_cSVzPQIONz2HL7YdKL0HDid0nAZkcf_original

সম্প্রতি আমিরের নাম উল্লেখ না করেই ভারতের কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী মনোহর পারিক্কর তার তীব্র সমালোচনা করেছেন। তিনি বলেছেন, ‘এক অভিনেতা বলেছেন যে তার স্ত্রী দেশ ছেড়ে চলে যেতে চাইছেন। এটা একটা অত্যন্ত উদ্ধত কথা। যদি আমি গরীব মানুষ হয়ে একটি কুঁড়ে ঘরে থাকি তাহলে আমি সেই ঘরটিকেই ভালবাসবো এবং একদিন সেখানেই একটা বাংলো বানানোর স্বপ্ন দেখব।’ ক্ষুব্ধ প্রতিরক্ষামন্ত্রী আরো বলেন, ‘এ দেশে এরকম কথা বলার কেউ সাহস পান কী করে? এরকম যিনি বলছেন তাকে জীবনের শিক্ষা শেখানো উচিত৷’

পারিক্করের কথা থেকে স্পষ্ট বোঝাই যাচ্ছে যে তার এই বাক্যবাণ আমির খানের উদ্দেশ্যেই।

গত নভেম্বরে আমিরের এই মন্তব্যের প্রতিবাদে উত্তাল হয়েছিল গোটা ভারত। কিন্তু সময়ের নিয়মেই তা থিতিয়ে পড়েছে। আর এই এক বছর হতে চলল, কিন্তু মন্ত্রীর এই কথাতেই আবার অসহিষ্ণুতা বিতর্ক পিছু ছাড়ল না আমির খানের৷ আর এভাবেই নাম না করে মি. পারফেকশনিস্টকে ঠিক এইভাবেই এক হাত নিলেন তিনি।

তবে আমিরের প্রতি তোপ দেগে বিতর্কে জড়িয়েছেন পারিক্করও। কংগ্রেস নেতা রণদীপ সিং সুরজেওয়ালার পাল্টা জবাব ‘প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর কাজ কি? পাকিস্তানের মতো বিদেশি শক্তির হাত থেকে দেশকে রক্ষা করা, নাকি দেশের অভিনেতার সমালোচনা করা?’

কিন্তু তাতেও চুপ করে যাননি প্রতিরক্ষামন্ত্রী। দেশের প্রতিরক্ষা নিয়ে ইতোমধ্যেই নিজের দৃষ্টিভঙ্গি সোজাসাপটা জানিয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী৷ কাশ্মীরে পেলেট গান ব্যবহার নিয়ে যখন গোটা দেশ সমালোচনামুখর, তখন প্রতিরক্ষামন্ত্রীর বক্তব্য, ‘কোনো জরুরি কারণে দেশ সেনাকে ব্যবহার করতে চাইলে তো বন্দুক তো ব্যবহার করতেই হবে, লাঠি তো আর ব্যবহার করতে পারবে না৷ দেশের সেনা সম্পর্কে যে বিরূপ সমালোচনা চলছে তাও থামিয়ে দিয়েছেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী৷ জানিয়েছেন, ‘সেনাদের কখনও ভুল হয়ে যেতেই পারে৷ কিন্তু ভারতীয় সেনা কখনোই জনগণের জন্য ক্ষতিকর নয়।’

এতকিছু ঘটে যাচ্ছে মি. পারফেকশনিস্ট আমির খানকে নিয়ে। কিন্তু এ বিষয়ে এখনও আমিরের পক্ষ থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

Comments

comments

Leave a Reply

Scroll To Top