প্রভিউ কমিটির অভিযোগের প্রেক্ষিতে কি বললেন আব্দুল আজিজ

যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত ‘বস ২’ এবং ‘নবাব’ সিনেমা দুইটি আসন্ন ঈদে মুক্তির প্রস্তুতি নিচ্ছে জাজ মাল্টিমিডিয়া। কিন্তু শেষ মুহুর্তে এসে সিনেমাদুটির ঈদে মুক্তিতে কিছুটা অনিশ্চয়তা তৈরী হয়েছে।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্রের ১৪টি সংগঠন নিয়ে গঠিত ‘চলচ্চিত্র ঐক্যজোটের আবেদনের প্রেক্ষিতে সম্প্রতি প্রিভিউ কমিটি ‘বস ২’ সিনেমার বিরুদ্ধে অসামঞ্জস্যতার অভিযোগ আনে। আনিত এইসব অভিযোগের প্রেক্ষিতে প্রিভিউ কমিটি তথ্য মন্ত্রণালয়ে এ সংক্রান্ত একটি চিঠিও দিয়েছে বলে জানা গেছে। শুধু তাই নয় ‘বস ২’ এরপর যৌথ প্রযোজনার আরেক ছবি ‘নবাব’ নিয়েও আপত্তি তুলেছেন প্রযোজক খোরশেদ আলম খসরু।

প্রিভিউ কমিটির এই সিদ্ধান্তের পর জাজ মাল্টিমিডিয়া তাদের ফেসবুক পেজে গুলজারকে সেন্সরের প্রিভিউ কমিটি থেকে সরিয়ে দেয়ার দাবি জানায়। পাশাপাশি প্রিভিউ কিমিটির সদস্য হিসেবে তার নিরপেক্ষতা নিয়েও প্রশ্ন তোলে দেশের শীর্ষস্থানীয় এই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান। এরপর বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে পাল্টা-পাল্টি অভিযোগ করে আসছে এই দুই পক্ষ ।

সম্প্রতি একটি অনলাইন পত্রিকার সাথে আলাপকালে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্নধার আব্দুল আজিজ। ‘বস ২’ সিনেমায় শিল্পী নেয়ার ক্ষেত্রে অসামঞ্জস্যতার অভিযোগ প্রসঙ্গে আজিজ বলেন, “প্রিভিউ কমিটিতে মূলত বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের লোকজন থাকেন আর চলচ্চিত্রের মানুষ বলতে পরিচালক মুশফিকুর রহমান গুলজার সাহেব ও প্রযোজক নাসির উদ্দিন দিলু ভাই থাকেন। মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাগণ এদের সবাইকে নাও চিনতে পারেন। কিন্তু এদের তো গুলজার সাহেবের চেনার কথা!”

প্রিভিউ কমিটি থেকে পরিচালক মুশফিকুর রহমান গুলজারের অপসারণের দাবি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “গুলজার সাহেব নিরপেক্ষতা হারিয়েছেন। একজন প্রিভিউ কমিটির সদস্য কখনো সিনেমা দেখে সিনেমার গল্প সর্ম্পকে আগাম বলতে পারেন না। এটা নীতির পরিপন্থি। গুলজার সাহেব বিশস্ততার যোগ্যতা ক্ষুন্ন করেছেন। সিনেমা মুক্তির আগ পর্যন্ত কিছু বিষয়ের গোপনীয়তা রক্ষা করতে হয়। সিনেমা মুক্তির আগে গল্প বলে দিলে ব্যবসায়িকভাবে ক্ষতি হয়। দায়িত্ব জ্ঞান থাকলে গুলজার সাহেব এই পদ থেকে পদত্যাগ করবেন।”

অন্যদিকে ‘নবাব’ সিনেমার অনুমতি প্রসঙ্গে প্রযোজক খোরশেদ আলম খসরুর অভিযোগের জবাবে আজিজ বলেন, “আমরা ‘নবাব’ সিনেমার অনুমতি ১ জুনের এর আগেই নিয়েছি। খসরু সাহেব তো অনেক কিছুই বলেন। উনি বলেন, ‘হল মালিকরা নিজ খরচে ডিজিটাল মেশিন বসান না কেন? আমার কথা হলো- উনি কেন ওনার হলে ডিজিটাল মেশিন বসান না। আমরা সিনেমার ক্ষতি করছি। উনি সিনেমা নির্মাণ করে চলচ্চিত্রের উন্নয়ন করেন না কেন? উনার কথা হলো- ভালো সিনেমা যেন না আসতে পারে। চলচ্চিত্র শিল্প ধ্বংস হয়ে যাক।”

উল্লেখ্য যে, শাকিব খান এবং শুভশ্রী জুটির ‘নবাব’ যৌথভাবে প্রযোজনা করেছে জাজ মাল্টিমিডিয়া এবং কলকাতার এসকে মুভিজ। অন্যদিকে জিত-শুভশ্রী-ফারিয়া অভিনীত ‘বস ২’ সিনেমার কলকাতার অংশের প্রযোজক হিসেবে আছে জিত ফিল্ম    অয়ার্ক্স।

Comments

comments

Scroll To Top