মুক্তির মিছিলে বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের পাঁচ ছবি

মুক্তির মিছিলে আছে বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের তত্বাবধানে নির্মিত পাঁচ ছবি।২০১৫ সালে বেঙ্গল ফাউন্ডেশন বেশ ঘটা করে চলচ্চিত্র নির্মাণের ঘোষণা দেয়। অনেকগুলো ছবির কথা শোনা গেলেও জানা গেল তাদের প্রযোজনায় পাঁচটি ছবি শিগগিরই মুক্তি পাবে। বেঙ্গল চলচ্চিত্র ফোরামের অধীনে নির্মাণ হয়েছে তিনটি ছবি। বেঙ্গল ক্রিয়েশনস নির্মাণ করছে আরও দুটি।

বেঙ্গল চলচ্চিত্র উন্নয়ন ফোরামের সমন্বয়ক এন রাশেদ চৌধুরী বললেন, ‘এর মধ্যে তিনটি পূর্ণদৈর্ঘ্য ছবির কাজ শুরু হয়ে যায় ২০১৫-এর শুরুতেই। হুমায়রা বিলকিস হাত দেন প্রামাণ্যচিত্র মাই লং রোড টু স্কুল-এর কাজে। সৈয়দা নিগার বানুর নোনা পানি কাহিনী চিত্রের কাজও শুরু হয়। রতন পাল শুরু করেন ইসমাইলের মা-এর শুটিং। ছবিগুলোতে অভিনয় করছেন থিয়েটারের অভিনয়শিল্পীসহ নবাগতরাও।’

এন রাশেদ চৌধুরী আরও বলেন,‘এ ছাড়া গত বছর বেঙ্গল ক্রিয়েশনসের উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত দুই নির্মাতার দুটি চলচ্চিত্রের নির্মাণকাজ শুরু হয়। মনপুরা–খ্যাত নির্মাতা গিয়াস উদ্দিন সেলিম শুরু করেন স্বপ্নজাল-এর শুটিং। শুটিং শুরু হয়েছিল এন রাশেদ চৌধুরীর চন্দ্রাবতী কথারও।’

অন্যদিকে এই প্রসঙ্গে গিয়াস উদ্দিন সেলিম বললেন, ‘আমরা এরই মধ্যে শুটিং শেষ করেছি। এখন সম্পাদনার কাজ চলছে। আশা করছি অক্টোবর নাগাদ ছবিটি মুক্তি দিতে পারব।’ স্বপ্নজাল চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন পরীমনি, ইয়াশ রোহান। চন্দ্রাবতী কথায় অভিনয় করেছেন গাজী রাকায়েত, নওশাবা, দোয়েল।

এর আগে বেঙ্গল ক্রিয়েশনস থেকে মুক্তি পেয়েছে জাহিদুর রহিম অঞ্জনের পরিচালনায় কথাসাহিত্যিক আখতারুজ্জামান ইলিয়াসের উপন্যাস রেইন কোট অবলম্বনে নির্মিত ছবি মেঘমল্লার ও হুমায়ূন আহমেদের উপন্যাস অবলম্বনে মোরশেদুল ইসলাম পরিচালিত অনিল বাগচীর একদিন।

২০১৪ সালে বেঙ্গল চলচ্চিত্র উন্নয়ন ফোরাম প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল মেধাবী নবীন নির্মাতাদের স্বপ্নের চলচ্চিত্র নির্মাণে সহায়তা দিতে। পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দিয়ে চিত্রনাট্য চাওয়া হলো। ১২৬টি চিত্রনাট্য জমা পড়ে। জুরিবোর্ড কয়েক ধাপে সেগুলো থেকে বাছাই করে পাঁচটি চিত্রনাট্য।

Comments

comments

Scroll To Top