ঢালিউডের তারকা সংকটে নতুন মুখ এবং জাজ মাল্টিমিডিয়ার অবদান

বাংলাদেশী চলচ্চিত্র স্টুডিও, পরিবেশক ও বৃহত্তম চলচ্চিত্র প্রযোজনা সংস্থা এবং ঢাকাই সিনেমার নতুন দিনের অন্যতম পথিকৃৎ জাজ মাল্টিমিডিয়া। বাংলাদেশী চলচ্চিত্রে বহু বছর ধরে ব্যবহার হয়ে আসা অ্যানালগ সিস্টেমকে পরিবর্তন করে ডিজিটাল সিস্টেমকে গ্রহণযোগ্য করে তোলার জন্য সর্বাধিক ভূমিকা পালন করেছে আসছে এই প্রতিষ্ঠানটি। শতাধিক প্রেক্ষাগৃহে ডিজিটাল প্রজেকশন, ডিজিটাল চলচ্চিত্র নির্মান, যৌথ প্রযোজনায় এবং বিগ বাজেটে চলচ্চিত্র নির্মান দিয়ে বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের উন্নয়নে এক অবিচ্ছেদ্য অংশে পরিণত হয়েছে চলচ্চিত্র প্রযোজনা-পরিবেশনা-নির্মানকারী এ প্রতিষ্ঠানটি।

যদিও বিভিন্ন সময়ে জাজের কথা আসলে ডিজিটাল সিনেমা নির্মান এবং প্রেক্ষাগৃহে ডিজিটাল প্রজেকশনের কথাই আগে আসে। কিন্তু আরো একটি ক্ষেত্রে জাজের অবদান অনেকটা অনুচ্চারিত থেকে যায়, আর তা হলো ঢাকাই সিনেমার এই তারকা সংকটের সময়ে নতুন মুখ উপহার।

অশ্লীলতা আর মান্না পরবর্তি ঢালিউডে সবচেয়ে বড় একটা সংকট তৈরী হয়, তা হলো তারকা সংকট। মাধাবী আর সম্ভাবনাময়ী নতুন মুখের অভাবে ধ্বংসের দ্বার প্রান্তে চলে যাওয়া এই ইন্ডাস্ট্রিকে নতুন প্রান দেয় জাজ। বিগ বাজেটের সিনেমা এবং বড় ক্যানভাসে ছবি নির্মান করে নতুন নতুন সম্ভাবনাকে সিনেমা জগতে নিয়ে আসে এই প্রতিষ্ঠান। বর্তমান সময়ে যে তারকাদের উপর ভর করে নতুন দিনের স্বপ্ন দেখছেন প্রযোজক পরিচালকবৃন্দ, তাদের বেশীরভাগই জাজের আবিষ্কার।

চলুন দেখে নেয়া যাক, জাজের আবিষ্কৃত তারকা এবং তাদের সম্ভাবনার গল্প।

১। মাহিয়া মাহি

২০১২ সালে মুক্তি পাওয়া জাজের প্রথম সিনেমা ‘ভালবাসার রং’ দিয়ে বাংলা চলচ্চিত্রে  অভিষেক হয় সময়ের সবচেয়ে বড় সম্ভাবনা মাহিয়া মাহির। এরপর ২০১৩ সালে তিনি ৪ টি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন; অন্যরকম ভালবাসা, পোড়ামন, ভালবাসা আজ কাল এবং তবুও ভালোবাসি। ২০১৩ সালে মাহিয়া মাহীর পর পর তিনটি ছবি বাক্স অফিস ব্লকবাস্টার হয়। তবে ২০১৪ সালে ‘অগ্নি’ সিনেমা দিয়ে বাংলাদেশের একজন হাই প্রোফাইল অভিনেত্রী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেন মাহিয়া মাহি।

২। বাপ্পি চৌধুরী

জাজের প্রথম ছবি ‘ভালবাসার রং’ এ মাহির বিপরীতেও ছিলেন আরেক নতুন মুখ, তিনি হলেন বাপ্পি চৌধুরী। মাহির মতো বাপ্পিকেও সিনেমা জগতে নিয়ে আসে জাজ মাল্টিমিডিয়া। তার সিনেমা ক্যারিয়ারের প্রথম দুটি চলচ্চিত্র জাজ মাল্টিমিডিয়ার ব্যানারে হলেও পরবর্তীকালে অন্য প্রযোজনা সংস্থার সাথেও ছবি করেছেন বাপ্পী। প্রথম চলচ্চিত্র মুক্তির আগেই প্রায় ৯টি ছবির ব্যাপারে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার খবরে বেশ আলোচনায় এসেছিলেন বাপ্পী।

৩। শিপন মিত্র

২০১৪ সালে মুক্তি পায় বাংলাদেশের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে নির্মিত সাম্প্রতিক সময়ের অন্যতম সেরা সিনেমা ‘দেশা দ্য লিডার’। জাজ মাল্টিমিডিয়ার প্রযোজনায় সৈকত নাসির পরিচালিত এই ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে পদার্পন করেন শিপন মিত্র। অত্যন্ত সুদর্শন এই তরুণ প্রথম ছবিতেই সকলের দৃষ্টি কাড়তে সক্ষম হন। অভিনয়ের প্রতি আরো কিছুটা যত্নবান হলে শিপন মিত্র খুব সহজেই আগামী দিনের নির্ভরযোগ্য তারকা হয়ে উঠবেন বলে মনে করেন চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টরা।

৪। নুসরাত ফারিয়া

নায়িকা মাহিয়া মাহীর সাথে জাজ মাল্টিমিডিয়ার সম্পর্কের অবনতি ঘটলে জাজ মাল্টিমিডিয়া তাদের নতুন নায়িকা হিসেবে নুসরাত ফারিয়াকে সবার সামনে তুলে ধরে। তারই ধারাবাহিকতায় ২০১৫ সালে বাংলাদেশ-ভারত যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত ‘আশিকি’ সিনেমার মাধ্যমে রুপালী জগতে পা রাখেন আলোচিত এই তারকা। ইতিমধ্যে ৫টি সিনেমায় অভিনয় করে নিজের সম্ভাবনার জানান দিতে সক্ষম হয়েছেন সময়ের জনপ্রিয় এই নায়িকা। গত রোজার ঈদে জিতের বিপরীতে ফারিয়ার ‘বাদশা-দ্যা ডন’ সিনেমা সুপার হিট ব্যবসা করে। এই মুহুর্তে ফারিয়ার হাতে আছে ‘বস ২’ এর মত যৌথ প্রযোজনার বড় বাজেটের সিনেমা।

৫। ফাল্গুনি রহমান জলি

২০১৬ সালের প্রথমদিকে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘অঙ্গার’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে নিজের যাত্রা শুরু করেন ফাল্গুনি রহমান জলি। বলা বাহুল্য এই সিনেমাটির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের নাম জাজ মাল্টিমিডিয়া। অন্য তারকাদের মতোই জলির অভিষেক উপলক্ষে বর্নিল আয়োজন করে জাজ মাল্টিমিডিয়া। ওয়াজেদ আলী সুমন পরিচালিত যৌথ প্রযোজনার অঙ্গারে নিজের প্রতিভার ইঙ্গিত দেন এই অভিনেত্রী। পরবর্তিতে আরিফিন শুভর বিপরীতে ‘নিয়তি’ সিনেমায়ও অসাধারণ অভিনয় করেন জলি।

৬। জিয়াউল রোশান

গত বছর ঈদুল আযহায় মুক্তি পায় জাজ মাল্টিমিডিয়ার অন্যতম বড় বাজেট এবং আলোচিত ছবি ‘রক্ত’। এই সিনেমার মাধ্যমেই ঢালিউডে অভিষিক্ত হন জাজের নতুন আবিষ্কার জিয়াউল রোশান। পরিমনির বিপরীতে একশন-রোমান্টিক চরিত্রে সবার নজর কাড়েন সুদর্শন এই নায়ক। অভিনয়ের পাশাপাশি নিজের পর্দা উপস্থিতি এবং নাচ দিয়ে নিজেকে সম্ভাবনাময়ী তারকা হিসেবে সবার কাছে তুলে ধরেন রোশান। ইতিমধ্যে তার দ্বিতীয় সিনেমা ‘ধ্যাততেরিকি’ মুক্তি পেয়েছে। সামনের দিনগুলোতে তাকে আরো উজ্জল তারকা হিসেবে দেখা যাবে বলে মনে করছেন সবাই।

৭। হুমায়রা ফারিন খান

‘ধ্যাততেরিকি’ সিনেমায় রোশানের নায়িকা হিসেবে নতুন মুখ নিয়ে আসে জাজ মাল্টিমিডিয়া। বাংলাদেশ-ভারত যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত এই সিনেমা মাধ্যমে রুপালী জগতে নিজের নাম লেখান হুমায়রা ফারিন খান। সাভারের মেয়ে ফারিন টুকটাক র‍্যাম্প মডেলিংয়ের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। পাশাপাশি তিনি কয়েকটি ফ্যাশন হাউজের বিলবোর্ডের মডেল হিসেবেও কাজ করেন।

৮। পূজা চেরী রায়

সম্প্রতি জাজ ঘোষণা দেয় তাদের সুপার হিট সিনেমা ‘পোড়া মন’  এর স্যিকুয়েল ‘পোড়া মন ২’ নির্মানের। আর এই ছবিতে রোশানের বিপরীতে অভিনয় দিয়ে ঢালিউডে আসছে জাজের নতুন আবিষ্কার পূজা চেরী রায়। এর আগে পূজা চেরী মাহি অভিনীত ‘অগ্নি’ সিনেমায় মাহির ছোট বেলার চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। খুব শীঘ্রই এই সিনেমার শুটিং দিয়ে নায়িকা হিসেবে ক্যামেরার সামনে দাঁড়াবেন এই আলোচিত মুখ।

Comments

comments

Scroll To Top
0