ঈদের ছবিঃ নতুন নতুন রেকর্ডে সবাইকে ছাড়িয়ে শাকিবের ‘নবাব’

ঢাকাই চলচ্চিত্রে ঈদের ছবির বাজার কতটা গুরুত্ব বহন করে তা আরো একবার প্রমাণিত। ঈদে মুক্তিপ্রাপ্ত ছবিগুলো নিয়ে চলে দর্শক থেকে শুরু করে হল মালিক, প্রযোজক, পরিবেশকদের হিসেব নিকাশের মহড়া। এবার ঈদে মুক্তিপ্রাপ্ত ছবিগুলো মুক্তির অনেক আগে থেকেই আলোচনায়। যৌথ প্রযোজনার নিয়ম ভাঙ্গার অভিযোগে ‘নবাব’ এবং ‘বস ২’ এর বিরুদ্ধে চলচ্চিত্র ঐক্যজোটের আন্দোলনের কারনে বেশ কিছুদিন ধরেই বিনোদন সংবাদের শীর্ষে সিনেমাদুইটি।

তবে সিনেমাগুলোর ব্যাপারে প্রদর্শক, হল মালিক এবং দর্শকদের আগ্রহ এবং উৎসাহ যে আকাশচুম্বী তা আরো একবার দৃশ্যমান হলো হলে হলে দর্শকদের ঢল দেখে। এই প্রত্যাশার কতটুকু পূরন করতে পেরেছে সিনেমাগুলো? কেমন ছিলো সিনেমাগুলোর সেল রিপোর্ট? কোন সিনেমার প্রতি দর্শকদের আগ্রহ বেশী? এই প্রশ্নগুলোর উত্ত খুঁজতেই ফিল্মীমাইকদের এই সরেজমিন রিপোর্ট।

এবার ঈদে মুক্তি পেয়েছে মোট তিনটি ছবি, যার মধ্যে ‘নবাব’ এনং ‘বস ২’ যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত। অন্যদিকে আমাদের দেশীয় প্রযোজনায় নির্মিত একমাত্র ছবি ‘রাজনীতি’। ঈদের সিনেমার ব্যবসার হালচাল নিয়ে জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্নধার প্রযোজক আবদুল আজিজ বলেন, “নবাববস টু গত ১০ বছরের ঈদের সেল ছাড়িয়ে গেছে। গত ঈদে মুক্তি পাওয়া শিকারিবাদশা থেকে ভালো ব্যবসা করেছে ছবি দুটি। ঢাকার বাইরের সারা দেশে ঈদের দিনের চেয়ে পরের দু’দিন সেল অনেক বেড়েছে। এটা বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথম।”

তবে তুলনামূলক বিচারে, এখন পর্যন্ত প্রাপ্ত তথ্যমতে এই তিনটি ছবির মধ্যে ব্যবসায়িকভাবে সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছে শাকিব খানের ‘নবাব’। মোট ১২৭টি হলে মুক্তি পাওয়া এই সিনেমা প্রথম দিনেই শাকিব খানের গত বছরের ঈদের ছবি ‘শিকারী’র সাফল্যকে ছাড়িয়ে গেছে। ছবিটির প্রযোজক জাজ মাল্টিমিডিয়া তাদের ফেসবুক পেজে প্রকাশিত তথ্যমতে দুই বাংলার ইতিহাসে এক হলের এক দিনের সর্বোচ্চ সেলের রেকর্ড করেছে শাকিব খানের ‘নবাব’। ঈদের দিন এক হলে সিনেমাটির মোট সেল ছিলো ৪,৬৫,000 টাকা। এছাড়াও সিনেমাটির অগ্রীম টিকেট বিক্রির ক্ষেত্রেও নতুন নতুন মাইলফলক তৈরী করেছে।

হলের সংখ্যা এবং আয়ের বিচারে ‘নবাব’ এর পরেই আছে যৌথ প্রযোজনার অন্য ছবি ‘বস ২’। জানা গেছে ঈদের দিন থেকে জিত অভিনীত এই সিনেমাটিও বেশ ভালো সেল দিচ্ছে। ১১২টি হলে মুক্তি পাওয়া এই সিনেমাটিও ঢাকা এবং ঢাকার বাইরে ছবিটি ঈদের দিন থেকে হাউজফুল শো চলছে। জিত-শুভশ্রী জুটির ছবিটি নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন প্রযোজক, বুকিং এজেন্ট, হল মালিকসহ সংশ্লিষ্টরা।

এদিকে দেশীয় মৌলিক ছবি ‘রাজনীতি’ দেখতে ঢাকার বাইরে দর্শকরা সিনেমা হলে ভিড় জমিয়েছেন। বুলবুল বিশ্বাস পরিচালিত এই সিনেমাটি মোট ৪০টি সিনেমা হলে মুক্তি পেয়েছে। যেসব হলে ‘রাজনীতি’ চলছে সেখানে দর্শকদের অনেক ভিড় লক্ষ্য করা গেছে।   এ প্রসঙ্গে ছবিটির পরিচালক বুলবুল বিশ্বাস একটি অনলাইন পত্রিকাকে বলেন, “আমি কয়েকটি হলে দর্শকদের সারিতে বসে ‘রাজনীতি’ দেখে বুঝেছি, দর্শকদের মাতিয়ে যাচ্ছে ছবিটি। শাকিব খান এবং অপু বিশ্বাসকে দর্শকরা ছবিটিতে নতুনভাবে পেয়েছে। যে কারণে ছবিটি দর্শকরা ভালোভাবে গ্রহণ করছে। এ ছাড়া ছবির গল্পের টার্নগুলো দর্শকদের মুগ্ধ করেছে। শুধু ঢাকা নয়, ঢাকার বাইরের শো-গুলোতেও হাউজফুল যাচ্ছে।”

ঈদের প্রথম সপ্তাহের পর দ্বিতীয় সপ্তাহ শুরু হতে যাচ্ছে। ঈদকে ঘীরে নানা উৎসব এবং আয়োজনের কারনে স্বাভাবিকভাবে দর্শক বেশী পাওয়া যায়। এখন সিনেমার সফলতা বা ব্যর্থতার মূল হিসাব-নিকাশ বোঝা যাবে আগামী সপ্তাহ থেকে। তবে প্রথম সপ্তাহের এই ব্যবসায়িক হালচাল সিনেমা শিল্পের সাথে সংশ্লিষ্ট সবাইকে আশবাদী করবে বলেই মনে করছেন সবাই।

Comments

comments

Scroll To Top
0